fbpx

ক্রেন ভাড়া

 ক্রেন ভাড়া ও আপনার করনীয়

ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে গেছে এবং কোনমতেই স্টার্ট হচ্ছে না, বেল্ট ছিড়ে গেছে, সাসপেনশন সিস্টেমটা ঠিকমত কাজ করছেনা এটা ক্রেনের একটা কমন প্রবলেম। এটা যেহেতু খোলামেলাই থাকে তাই ধুলাবালি ও বৃষ্টির পানি দ্বারা খুব সহজেই ড্যামেজ হয়ে যায়। ইলেকট্রিক্যাল বা ম্যাকানিক্যাল সিস্টেম প্রবলেমের জন্য পুরো ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এ ধরনের প্রবলেমে ঢাকা থেকে টেকনিশিয়ান আপনার প্রজেক্ট লোকেশনে গিয়ে প্রবলেম আইডিন্টিফাই করে সলিউশন করা সময় সাপেক্ষ। আপনি এবং ভেন্ডর হয়ত একমত হবেন যে সময় ক্রেন বন্ধ থাকবে আপনি ঐ সময়ের বিল ডিডাক্ট কিংবা এলডি দেবেন কিন্ত আপনার প্রজেক্টের কাজের যে ক্ষতি হবে তার দায়িত্ব কার? তাই প্রথমেই আপনি সঠিক ক্রেন ভাড়া করেছেন কিনা তা ওয়েল লেভেল চেক করুন “বিএমএস লজিষ্টিক এন্ড রেন্টাল সার্ভিস সেন্টার সততা-আস্থা-বিশ্বাস” এর সাথে গুনগত মান, সঠিক দাম নিয়ে পথচলা একটি প্রতিষ্ঠান। ব্যবসার পাশাপাশি অনগ্রসরমান এই সেক্টরে সচেতনতা বৃদ্ধি, প্রযুক্তির ব্যবহার, গ্রাহকের কাছে সঠিক তথ্য উপস্হাপনের কাজ নিরলস ভাবে করে যাচ্ছে। আমরা অত্যন্ত পেশাদার দায়িত্ব সহকারে বাণিজ্যিক কাজের জন্য দৈনিক অথবা মাসিক চুক্তিতে আপনার চাহিদানুযায়ী Crane ভাড়া দেই। আমাদের rental pool এ আছে-

  • Tower Crane.
  • Rough Terrain Crane.
  • Crawler Crane.
  • Railroad Crane.
  • Telescopic Handler Crane.
  • Harbor Cranes.

ক্রেন ভাড়া  সাধারণ  নিয়মাবলীঃ

১। কাজের সময়: প্রতিদিন ৮ ঘন্টা করে মাসে ৩০ দিন বা ৩০*৮=২৪০ ঘন্টা। সাধারনত  কাজ শুরু হয় সকাল ৯টা/১০টা এবং শেষ হয় বিকাল ৫টা/৬টা। তবে বিশেষ কোন কারণ ছাড়া ভাড়া গ্রহনকারীর প্রয়োজন অনুযায়ী ওভারটাইম করা হয়।

২। ওভারটাইম: দৈনিক ৮ ঘন্টা ডিউটির পর ওভারটাইম হিসাবে বিবেচিত হবে। ওভারটাইম দিনে রাতে যে কোন সময় হতে পারে, এ ব্যাপারে আমাদের কোন আপত্তি থাকবেনা। উল্লেখ্য যে ওভারটাইম বিল আনুপাতিক হারে যোগ করা হয়।

৩। জ্বালানী খরচ: সাধারনত ক্রেনের জ্বালানী খরচ আমদের মধ্যে রাখা হয়। তবে আলোচনা সাপেক্ষে ভাড়া গ্রহনকারীর মধ্যেও রাখা যেতে পারে।

৪। মোবিলাইজেশন: প্রজেক্ট সাইটে ক্রেন পৌঁছানোর খরচ (জ্বালানী,ব্রীজ টোল ফেরী) ভাড়া গ্রহণকারীকে প্রদান করতে হবে। প্রজেক্ট সাইট হতে ফিরিয়ে নিয়ে আসার খরচ আমরা বহন করব। তবে ভাড়ার মেয়াদকাল বেশী হলে আলোচনা সাপেক্ষে হবে।

৫। অপারেটরের থাকার ব্যবস্থা: প্রতিটা ক্রেনের সাথে একজন অপারেটর ও একজন হেলপারের রাত যাপনের ব্যবস্থা ভাড়া গ্রহণকারীকে প্রজেক্ট সাইটে করতে হবে।

৬। নিরাপত্তা: ভাড়া গ্রহণকারীকে প্রজেক্ট সাইটে প্রয়োজনীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে।

৭। ভাড়া নির্ধারণ  ও পরিশোধ: আমরা সাধারনত ভাড়ার মেয়াদকাল কাজের ধরণ দুরত্ব,চাহিদা, ক্রেনের সাইজ, ক্রেন ও ড্রাইভারের কোয়ালিটি, বাজারের চাহিদা, সিজন,প্রাপ্যতার ভিত্তিতে ক্রেনের ভাড়া নির্ধারণ করে থাকি।

৮। পরিশোধ: পারচেজ অর্ডারের সাথে এক মাসের ভাড়া অগ্রীম প্রদান করতে হবে। রানিং বিল প্রতিমাসের ১০ তারিখের মধ্যে প্রদান করতে হবে যা ভাড়া গ্রহনকারীর পারচেজ অর্ডার এ উল্লেখ থাকবে।

৯। চুক্তি পত্র: ভাড়া প্রদান কারী ও ভাড়া গ্রহন কারীর মধ্যে মালিক সমীতির নির্দিষ্ট ফরমেটে ৩০০ টাকার ষ্ট্যম্পে একটা একটা চুক্তি নামায় স্বাক্ষর করতে হয়। পাশাপাশি ভাড়া গ্রহনকারী কোম্পানীর লেটার হেডে সংশ্লিষ্ট অফিসারের স্বাক্ষরিত একটি পারচেজ অর্ডার প্রদান করতে হবে।

১০। Site Location Visit: যদি আপনি না বুঝতে পারেন আপনার কত টন লোডিং ক্ষমতা ক্রেন লাগবে তাহলে আপনার কাজের ধরন, চাহিদা বিবেচনা করে আমাদের  প্রতিনিধি  আপনার site location visit করবে।

                                                                                       যে  বিষয় গুলো বিবেচনায় আনতে হবে

ক্রেন ভাড়া করা খুবই জটিল, স্পর্শকাতর ও টেকনিক্যাল একটি সিদ্বান্ত। এখানে সুনির্দিষ্ট কোনো নিয়ম বা পদ্ধতি অনুসরন না করার কারণে আপনার প্রজেক্ট সময়মত কাজ সম্পন্ন করতে পারবেনা। এছাড়া ক্রেন ভাড়ার ক্ষেত্রে অনেকে নানা ধরনের প্রতারনা বা হয়রানির শিকার হতে হয়। তাই ক্রেন ভাড়ার ক্ষেত্রে খুব সতর্ক ও যত্নবান থাকতে হয় তা না হলে বড় ধরনের লোকসানের ঝুঁকি থাকে। এখানে আমরা কিছু কমন ইস্যু উল্লেখ করেছি। তবে নিজ নিজ বাস্তবতা ও বিচার-বিশ্লেষণের আলোকে ভাড়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়াই ভালো।

যাচাই করুন সঠিক ভেন্ডর

আপনি যে প্রতিষ্ঠান থেকে ক্রেন ভাড়া নিতে চান উক্ত প্রতিষ্ঠানটি রাষ্ট্রীয় ভাবে Valid কিনা এটা অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে দেখতে হবে। কারন আপনার প্রজেক্টে অনাকাংখিত দুর্ঘটনার পরিস্হিতিতে আপনার ভেন্ডরের Valid Documents অত্যন্ত গুরুত্ব বহন করবে। তাই ট্রেড লাইসেন্স,টিন সাটিফিকেট,ভ্যাট রেজিষ্ট্রেশন আছে কিনা ভাল ভাবে যাচাই করুন।

ক্রেনের হেলথ চেকআপ

ক্রেন ভাড়া করা একটি টেকনিক্যাল সিদ্ধান্ত তাই আপনার প্রজেক্টে ক্রেন পৌঁছার আগেই ক্রেনের হেলথ চেকআপ করুন। আপনি সরাসরি হেলথ চেকআপে অংশ না নিতে পারলেও ভাইবার, হোয়াটসআপ বা ইমুতে দেখে নিন, প্রয়োজনে লোড টেষ্ট সাটিফিকেট দেখে নিন। ক্রেনের হেলথ চেকআপের ব্যপারে আপনাকে অত্যন্ত দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হবে।

দায়িত্বশীল, প্রশিক্ষিত ক্রেন অপারেটর

একজন প্রশিক্ষিত,দক্ষ দায়িত্বশীল অপারেটর ক্রেন ভাড়া করার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিবেচ্য বিষয় আপনার কাজের কোয়ালিটি ও গতিকে একজন দক্ষ দায়িত্বশীল অপারেটর যেমন বহুগুনে বাড়িয়ে দিতে পারে তেমনি আপনার প্রজেক্ট সময়মত কাজ শেষ করতে পারবেনা যদি অপারেটর প্রশিক্ষিত,দক্ষ দায়িত্বশীল না হয়। তাছাড়া একজন অপারেটর আপনার প্রজেক্টের নিরাপত্তা ঝুঁকি হ্রাস বৃদ্ধিতে বড় ভুমিকা রাখবে।

 

রেফারেন্স যাচাই করুন

নেগোশিয়েশন পিরিয়ডে ভেন্ডর আপনাকে তার কাজের রেফারেন্স বলতে পারে। আপনি যে প্রতিষ্ঠান থেকে ক্রেন ভাড়া নিতে ইচ্ছুক উক্ত প্রতিষ্ঠানটি অতীতে স্বনামধন্য কোন কোম্পানীতে কাজ করেছে কি না তার প্রমাণ হিসাবে ঐ কোম্পানীর work order আছে কিনা যাচাই করে নিবেন। যদি সম্ভব হয় ফিডব্যাকের জন্য কথা বলুন।

   আমাদের Expert পরামর্শ নিন

যদি আপনি না বুঝতে পারেন আপনার কি গাড়ী লাগবে, কিংবা কোনটা আপনার জন্য সঠিক, নিঃসঙ্কোচে আমাদের জানান। আমাদের অভিজ্ঞ প্রতিনিধি আপনাকে সঠিক পরামর্শ দিতে সদা প্রস্তুত। আমাদের ফোন করুন-০১৬২৭-৩৫৫৩৮২/০১৬২৭-৩৫৫৩৮৩

 

টেকনোলজির ব্যবহার

যে প্রতিষ্ঠানকে ভেন্ডর হিসাবে নিযুক্ত করতে চান প্রথমে উক্ত প্রতিষ্ঠানটির ওয়েব সাইট কিংবা ফেসবুক প্রোফাইল দেখে নিবেন। উক্ত প্রতিষ্ঠানটি ইমেইল, ইন্টারনেট ব্যবহারে কতটা দক্ষ তা যাচাই করে নিবেন। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেওয়া আপনার সহজ হবে।

আমরা আছি
২৪ ঘন্টা ৩৬৫ দিন
আমাদের ই-মেইল
info@bmsrental.com

 

আমাদের ফোন
০১৬২৭-৩৫৫-৩৮২/৩
error: Content is protected !!